প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ  বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন ৫০ লাখ মানুষকে আড়াই হাজার টাকা করে দেবেন। কিন্তু আড়াই হাজার টাকা থেকে সরকারের লোকেরা ৫০০ টাকা রেখে দিচ্ছেন।

 

 

শনিবার দুপুরে রাজধানীর জয়কালী মন্দির কাপ্তান বাজার এলাকায় ত্রাণ বিতরণের সময় এমন অভিযোগ করেন তিনি।বিএনপি নেতা হামিদুর রহমান হাবিরের উদ্যোগে এই ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

 

 

রিজভী বলেন, সরকারের লোকেরা যে ৫০০ টাকা রেখে দিচ্ছেন সেটা কি ভন্ডামি নয়? গরিব মানুষের সঙ্গে প্রতারণা নয়? এরকম পরিস্থিতিতে এ দেশের গরিব, অসহায়, কর্মহীন মানুষের দিনযাপন করতে হচ্ছে।

 

 

তিনি আরও বলেন, আমাদেরকে সরকারের ত্রাণ দেয়া হয় না। পকেটের টাকা দিয়ে খাদ্যসামগ্রী কিনে অসহায় মানুষের মধ্যে বিতরণ করছি। আর সরকারের ত্রাণ গরিব মানুষ পাচ্ছে না। সরকারের ত্রাণ চলে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ নেতা, তাদের দলীয় চেয়ারম্যান মেম্বারদের বাড়িতে।

 

 

রিজভী বলেন, এই সরকার সংকট সমাধান করে না, সংকট সৃষ্টি করে। সংকট সমাধান করলে ত্রাণ লুটপাট হতো না। করোনাভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করতে পারত না।

 

 

লকডাউন শিথিল করে সারাদেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দিতে সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে সরকার। প্রতিদিন হাজারের বেশি লোক আক্রান্ত হচ্ছে। আগে প্রতিরোধ করার ব্যবস্থা ছিল, সরকার তা করেনি। সরকার করোনা মোকাবেলায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।