প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নেমে শুরু থেকেই বোলারের ওপর চড়াও হন ভারতের রোহিত শর্মা। উইকেটে থিতু হয়ে যাওয়ার পর তার চেয়ে ভয়ঙ্কর ব্যাটসম্যান এই সময়ের ক্রিকেটে সম্ভবত আর নেই। স্রেফ ওয়ানডে ফরম্যাটেই তিনটা ডাবল সেঞ্চুরির মালিক তিনি। এই ফরম্যাটেই ২৬৪ রানের অভাবনীয় ইনিংস খেলেছেন। এর পেছনে রহস্য কি? সেঞ্চুরির পর যেখানে প্রায় সব ব্যাটসম্যানের জ্বালানি শেষ হয়ে আসে, সেখানে রোহিত কীভাবে আরও ভয়ংকর হয়ে ওঠেন? কিভাবে ইনিংসকে আরও বড় করেন?

 

 

এই মারকাটারি ব্যাটিংয়ের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ‘হিটম্যান’ তকমা পেয়েছেন রোহিত। গতকাল শুক্রবার লাইভ আড্ডায় রোহিতকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করেছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায় তামিম ইকবাল। মজা করে তামিম জানতে চান, ‘সবসময়ই এই কৌতূহল আমার ছিল, সেঞ্চুরির পর আপনার কী হয়ে যায় রোহিত ভাই? কোনো ভূত-প্রেত ভর করে আপনার মধ্যে! রহস্যটা কি?’

 

 

রোহিত হেসে জবাব দেন, ‘ইনিংস শুরুর সময় আমিও নার্ভাস থাকি। সেঞ্চুরি হয়ে যাওয়ার পর তো নার্ভাসনেস সব চলে যায়। তখন উপভোগ করা উচিত। সেঞ্চুরির পরের সময়টা আমার, খেলাটা নিজের। ভুল না করলে আউট হওয়ার উপায় নেই। সেটিই আমি ভাবি। আমার জানা আছে, যখন সময় খারাপ থাকে, ভালো-খারাপ সব বলেই আউট হতে হয়, বাজে সিদ্ধান্ত পেতে হয় অনেক সময়। আমি সব মনে রাখি। সেঞ্চুরি করার পর আমি ওই সব কিছু মনে করি এবং সুযোগটি পরিপূর্ণ কাজে লাগাতে চাই। ক্রিজে নিজেকে বারবার এই কথাই বলি।’