প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ  ২০৫০ সালে এগিয়ে গেলেন ভারতীয় বাঙালি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র! ওই সময়ে নিজেকে রেখে এক ভিডিওর মাধ্যমে প্রকাশ করলেন মানুষের আগের জীবনের কথা।

 

এই আগের জীবন বলতে তিনি ২০২০ বা তার আগের সময়কেই বুঝিয়েছেন।কাটা কাটা স্বরে কথা বলে শ্রীলেখা ব্যাখ্যা করে বুঝিয়ে দিয়েছেন কেমন ছিল মানুষের সেই আগের জীবন।

 

কাটা কাটা স্বরের কারণ হচ্ছে, ২০৫০-সালে মানুষের কথা বলার ভঙ্গিও নিশ্চয়ই বদলে যাবে- সে ভাবনা থেকেই এমন ভঙ্গিতে কথা বলা। আগের জীবনের বর্ণনায় শ্রীলেখা বলছেন, তখন মানুষ মাস্ক পরত না।

 

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখত না। যখন খুশি পার্টি করত।শুধু রাজনৈতিক পার্টি নয়, বন্ধুদের সঙ্গেও পার্টি। তখন ‘আড্ডা’ বলে একটা বিষয় ছিল।এ সময় বন্ধুদের সঙ্গে কাটানো বিভিন্ন মুহূর্ত দেখা গেছে ভিডিওতে, যাকে আরেক ধারার পার্টি হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন শ্রীলেখা।

 

সেখানে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রী বন্ধুদের সঙ্গে ওয়াইন গ্লাসের চুমুকে খুশিতে আত্মহারা। এছাড়া তার এ ভিডিওর একটি অধ্যায় জুড়ে আছে লিপস্টিক! লিপস্টিককে কতখানি মিস করছেন তিনি তা বোঝা যাচ্ছে।

 

যেহেতু সময়টা ২০৫০, তাই শ্রীলেখা ব্যাখ্যা করে বলেছে, আগের দিনে অর্থাৎ, ২০২০ সালের দিকে কেমন করে লিপস্টিক ঠোঁটে লাগাত মানুষেরা। লিপস্টিক প্রসঙ্গ থেকে তিনি রাত্রিকালীন পার্টি আর চুমুর প্রসঙ্গ তুলে ধরেছেন ভিডিওতে।

 

দেখিয়েছেন মানুষ একে অপরকে ভালো লাগলে কীভাবে চুমু দিত। এরপরই হতাশা ফুটে ওঠে তার কন্ঠে, কারণ সময় ২০৫০। মানুষ আর সেই আগের মতো নেই।