প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ  পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি উড়োজাহাজ করাচির আবাসিক এলাকায় বিধ্বস্ত হয়েছে। ওই বিমানটি করাচির উদ্দেশে লাহোর থেকে ১০৭ জন আরোহী নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল।

 

এই বিমান দুর্ঘটনায় যাত্রীদের মধ্যে মাত্র একজন বেঁচে আছেন বলে জানা গেছে।সিন্ধু প্রদেশের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।এদিকে ভয়াবহ সেই দুর্ঘটনার একটি সিসিটিভি প্রকাশ করেছে কলকাতাভিত্তিক সংবাদমাধ্যম কলকাতা টোয়েন্টিফোর সেভেন।

 

এতে দেখা যায়, পিআইএর ওই উড়োজাহাজটি ধীরে ধীরে নিচের দিকে নেমে যাচ্ছে। হঠাৎ করেই পড়ে যায়। এরপর ধোঁয়ার কুণ্ডলি উড়তে থাকে।সামাজিকমাধ্যমেও ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

 

হাজার হাজার নেটিজেন ভিডিওটি দেখে মন্তব্য করেন। বেশিরভাগেরর মন্তব্যে ‘বীভৎস দুর্ঘটনা’ শব্দটি উল্লেখ হয়।লাহোর থেকে যাত্রা শুরু করে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) বিমানটি করাচির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাচ্ছিল।

 

বিমানবন্দর থেকে বিমানটি মাত্র প্রায় এক মিনিটের দূরত্বে বিধ্বস্ত হয়।পিআইএ’র মুখপাত্র আবদুল সাত্তারের বরাত দিয়ে দেশটির ইংরেজি সংবাদমাধ্যম ডন জানিয়েছে, লাহোর থেকে ছেড়ে আসা ফ্লাইট এ-৩২০ করাচির জিন্নাহ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে নামার কয়েক মিনিট আগে কাছের একটি আবাসিক এলাকায় বিধ্বস্ত হয়। ওই ফ্লাইটে ৯৯ জন যাত্রী এবং ৮ জন ক্রু ছিলেন। দুর্ঘটনার পরপরই সেনাবাহিনীর উদ্ধারকর্মীরা সেখানে পৌঁছে কাজ শুরু করে।।