প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ  মালয়েশিয়ান ইসলামিক ফাউন্ডেশন (আগামা ইসলাম) এর সিদ্ধান্ত অনুসারে মালয়েশিয়ায় আগামী রবিবার পবিত্র ঈদুল-ফিতর অনুষ্ঠিত হবে। তবে এবারের ঈদ হবে অনেকটা নিরানন্দের। স্বল্প পরিসরে মসজিদগুলোতে অনুষ্ঠিত হবে ঈদ জামাত।

 

বাকি সকল জনসাধারণকে নিজ নিজ বাসায় সামাজিক দূরত্ব মেনে ঈদের নামাজ আদায়ের আহ্বান জানানো হয়েছে ইতোপূর্বে।বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বেকারত্ব ও টানা লকডাউনের কবলে পড়ে এবার প্রবাসীদের মনে নেই কোনো ঈদ আনন্দ, নেই তেমন ঈদের প্রস্তুতিও।

 

তাই স্থানীয়দের পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশিদেরও এবারের ঈদটা হবে একেবারেই ভিন্ন। করোনার কারণে এখনো কর্মহীন হয়ে দিন পার করছে কয়েক হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি। লকডাউন শুরু প্রারম্ভে কাজ থাকলেও বেতন পাননি অনেকে। বিভিন্ন দেশের মত বন্ধ রয়েছে মালয়েশিয়ার ছোট-বড় অনেক কোম্পানি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

 

একদিকে চলছে নিজেদের উৎসববিহীন ঈদ প্রস্তুতি, অন্যদিকে বাড়ছে পরিবারের টাকা না পাঠানোর দুঃসহ যন্ত্রণা।মুদি ব্যবসার সাথে জড়িত কিছু প্রবাসী ভালো থাকলেও রেস্টুরেন্ট, সেলুন ও ঠিকাদারি ব্যবসার সাথে জড়িত অনেকেরই দিন কাটছে এখন অনেকটা টানাপোড়েনের মধ্যদিয়েই। তারা আশা করছেন আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন খুব শিগগিরই।