প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ মহামারি করোনাভাইরাস যেন এক রেসের ঘোড়া। একদিন কোনো দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আবার পরের দিন সেই দেশকে পেছনে ফেলে নতুন কোনো দেশ উঠে আসছে।

 

কখনো দেখা যাচ্ছে, অনেক পিছিয়ে থাকা দেশ কয়েকদিনের ব্যবধানে হঠাৎ শীর্ষ তালিকায় পোঁছে গেছে। যেমন করে আক্রান্তের তালিকায় দ্রুত সামনের দিকে চলে এসেছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল।

 

কভিড-১৯ সংক্রমিত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের লাশ দাফনের জন্য ব্রাজিলে খোঁড়া হচ্ছে গণকবর। ভয়ংকর এই দৃশ্য দেখা গেছে উড়ন্ত ক্যামেরায় ধারণ করা ছবিতে।

 

দ্য সান এবং মিরর অনলাইনসহ একাধিক গণমাধ্যমে গণকবরের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। তবে কে বা কারা এগুলো তুলেছেন তা জানা যায়নি। ছবির ক্রেডিটে সংবাদ সংস্থা এএফপির নাম দেখা গেছে।

 

ব্রাজিল সরকারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে একদিনে এক হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। সব মিলিয়ে সেখানে ‘২১ হাজারের বেশি’ মানুষ রোগটিতে প্রাণ হারিয়েছেন।

 

তবে ব্রাজিলের কয়েকটি গণমাধ্যমের দাবি, মৃতের সংখ্যা আরও কয়েক গুণ বেশি!যে গণকবরের খবর সামনে এসেছে সেটি সাও পাওলোতে দেখা গেছে বলে সানের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

 

সেখানকার করোনা মোকাবিলা কমিটির প্রধান ডিমাস কোভাস বলছেন, ‘আমরা করোনার কাছে হেরে যাচ্ছি। এটাই বাস্তবতা।’ইউরোপিয়ান সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোলের সবশেষ হিসাব অনুযায়ী, ব্রাজিলে ৩ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

 

ব্রাজিল বিপদে পড়েছে টেস্ট নিয়ে সরকারি ‘গাফিলতির’ কারণে। করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে শুরুতে একদম গুরুত্ব দেয়া হয়নি।করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার পরিচয় দেয়ার জন্য দেশটির প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো অভিশংসনের ঝুঁকিতে রয়েছেন।

 

শেষ খবর পর্যন্ত ব্রাজিলে ৩ লাখ ৩২ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ। তৃতীয় অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ২৬ হাজার।